মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

খাল-বিল ও নদী

পোড়াহাটি ইউপিতে একটি  নবগঙ্গা নদী রয়েছে। নদী দৈর্ঘ্য  ৪ কিলোমিটার।  নদী ভাঙ্গনের ফলে কখনো কখনো উক্ত নদী গুলোর বিভিন্ন পরিবর্তন হয়ে থাকে। 

 

দী ভাঙ্গন

নদী ভাঙ্গন বাংলাদেশের একটি নিয়মিত দূর্যোগ। নদী ভাঙ্গনে ক্ষয়ক্ষতি ধীরে ধীরে হলেও অন্যান্য আকস্মিক ও প্রলয়ঙ্করী দূর্যোগ অপেক্ষা অধিক ধংসাত্মক ও সুদূর প্রসারী। 

 

  • নদী ভাঙ্গনের কারণঃ প্রাকৃতিক 
  • নদী ভাঙ্গনের কারণঃ মানবসৃষ্ট 
  • সমাজ জীবনে নদী ভাঙ্গনের ফলাফল
  • সম্ভাব্য নদীভাঙ্গন মোকাবেলায় প্রস্ত্ততিসমূহ
  • নদী ভাঙ্গন সম্পর্কে যা জানা দরকার

  

নদী ভাঙ্গনের কারণঃ প্রাকৃতিক 

  • বাংলাদেশ একটি পলি গঠিত বদ্বীপ ভূমি হওয়ায় এখানকার ভূমি নদীর পানির ধাক্কায় বা সামান্য তোড়ে অতি সহজেই ভেঙ্গে যায়।
  • মাটির গঠন দুর্বল বিধায় সামান্য চাপ বা আঘাতে নদীর পাড়ে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • দেশের উত্তর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অকস্মাৎ বন্যার প্রভাবে অতি দ্রুত গতির বা আকস্মিক নদী ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • বর্ষাকালে বা বন্যার সময় নদীতে পানির পরিমান বৃদ্ধি পায়, ফলে বর্ধিত পানির চাপে নদীর পাড়ে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • ঢেউয়ের আঘাতেও অনেক সময় নদীর পাড়ে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • যেখানে যেখানে নদী তার গতিপথ পরিবর্তন করেছে, সেখানে সৃষ্ট বাঁকে নদী ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • নদী অনেক শাখায় বিভক্ত হয়ে গেলে, মধ্যস্থিত চরসমূহের পাড়ে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • নদীর আকারও ভাঙ্গনের একটি কারণ, কেননা বড় নদীতে ভাঙ্গন বেশী হয়।
  • নদীর পাড়ে নিচের দিকে অবস্থিত নরম পলি মাটি পানির ধাক্কায় ধাক্কায় গলে যাবার ফলে নিচের দিকে ফাঁপা সৃষ্টি হয় এবং উপরের শক্ত মাটি প্রথমে ধ্বসে গিয়ে পরে ভেঙ্গে পড়ে।
  • নদী ভরাট হয়ে যাবার কারণে পানি বৃদ্ধির সময় পাড়ের উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হয় এবং পাড় ভাঙ্গতে থাকে।
  • নদীতে জোয়ার-ভাটার কারণে সৃষ্ট পানি চলাচলের প্রভাবে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • নদীতে নতুন চর সৃষ্টি বা অন্য কোন প্রাকৃতিক কারণে নদীর স্বাভাবিক গতিপথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হলে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • নদীর পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে স্রোত বৃদ্ধি পেলে পানিতে যে বলয় বা গোলা সৃষ্টি হয় তার প্রভাবেও নদী ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলেও অনেক সময় নদীতে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
1River%20Erosion  2River%20Erosion

বির টাইটেল:বর্ষাকালে নদীতে তীব্র স্রোত  

ছবির টাইটেল: হঠাৎ বন্যায় নদী ভাঙ্গন  
 3River%20Erosion  4River%20Erosion

ছবির টাইটেল: নদীর পাড়ে ঢেউয়ের আঘাত  

ছবির টাইটেল: নদীর বাঁকে ভাঙ্গন
 5River%20Erosion  6River%20Erosion
ছবির টাইটেল: চরে ভাঙ্গন  ছবির টাইটেল: নদীর পানিতে তৈরি হওয়া বলয় বা গোলা 
   

 

নদী ভাঙ্গনের কারণঃ মানবসৃষ্ট 

  • নদীর মাঝখানে আড়াআড়ি বাঁধ নির্মাণ করে নদীর গতি রুখতে চেষ্ট করার ফলে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হিসাবে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • ভাঙ্গনপ্রবণ এলাকায় নদীর পাড় বা জমি খানিকটা ছেড়ে দিয়ে অথবা নদীর পাড় থেকে অনেকটা ভিতরে গিয়ে ভাঙ্গন প্রতিরোধমূলক বা বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণের কারণে নদী ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • অপরিকল্পিত রাস্তা-ঘাট ও বাঁধ নির্মাণ করে মৌসুমী বর্ষার পানি নিস্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির ফলে নদীতে পানির চাপ বাড়ে এবং ভাঙ্গনের তীব্রতা বৃদ্ধি পায়।
  • মানুষ কর্তৃক কৃত্রিম উপায়ে অযৌক্তিকভাবে নদীর গতিপথ পরিবর্তনের চেষ্টার ফলস্বরূপ নদী ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • শহর রক্ষার উদ্দেশ্যে নদীর এক পাড়ে উঁচু বাঁধ নির্মাণ করে ভাঙ্গন প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের ফলে অপর পাড়ে ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়।
  • নদীর উৎস মুখে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে হঠাৎ হঠাৎ অতিরিক্ত পানি ছেড়ে দেয়ার ফলে নদীর পাড়ে আকস্মিক ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • স্লুইস গেট নির্মান করে পানি নিয়ন্ত্রণের নামে পানি আটকে দেয়ার ফলে পানির চাপ বৃদ্ধির কারণে নদীর পাড়ে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • চর-ভূমির গাছ ও কাঁশ বন নিধনের ফলে চরের পাশ দিয়ে ভাঙ্গন হয়ে থাকে।
  • ফেরী বা জাহাজ চলাচলের কারণেও অনেক সময় নদী ভাঙ্গন হয়।
  • অযৌক্তিক ড্রেজিং বা নদী খননের ফলেও নদী ভাঙ্গন হয়ে থাকে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter